ব্যাকগ্রাউন্ড

মুক্তচিন্তার বিশ্ব

আপনার পছন্দের যে কোন কিছু সহব্লগারদের সাথে শেয়ার করতে ও শেয়ার কৃত বিষয় জানতে এখানে ক্লিক করুণ

ফেইসবুকে!

চুপকথার প্রবন্ধঃ লিঙ্গ সমস্যা না সম্ভাবনা

                                                    উৎসর্গ

                             ভালোবাসা, অনুভব, খোঁচাখুচিতে ব্লগসঙ্গী যুক্তিযুক্ত

 

প্রত্যেক লেখকের লেখার গণ্ডির একটি ভূগোলিক সীমা রেখা থাকে। চুপকথা লেখক নয় তাই তার সুনির্দিষ্ট কোন ভূগোল নেই। অথবা বলা যেতে পারে তার সীমা মুক্তচিন্তা ব্লগ পর্যন্তই। চুপকথা মুক্তচিন্তার লেখকদের কষ্ট দিয়ে মজা পায়। তাই তার মন্তব্য মাঝে মাঝে কাটখোট্টা লাগতে পারে। তাতে দাম্ভিক চুপকথার কিছু আসে যায় না। পোস্ট ভালো হলে সঞ্চালক নামের আজব ধরনের যে বস্তুটি ব্লগে বিদ্যমান তিনি ছাপবেন না হলে ময়লার বাক্সে ফেলে দিবেন। চুপকথার বক্তব্য প্রকাশ করে সঞ্চালক, তাই যে লেখা প্রকাশ পাবে সে লেখাকে ময়লা ভিন্ন অন্য কিছু ভাবা হবে। অবশ্য ময়লা যে এ ব্লগে একদম প্রকাশ হয় না তাতো না। তবে কেউ নিজে লিখে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস ধরনের লেখা দিলেও চুপকথা ঐ ব্লগারকে সম্মান করে। প্রতিটি মন্তব্যকে সম্মান করে এবং গুরুত্ত্ব দেয়।     

 

কবি সফিকুল ইসলাম সুলতা কবিতা প্রকাশ করলে সেটা সমর্থনযোগ্য। কিন্তু একটা নিকের মাধ্যমে আরদালি-চাপরাশি ( এ শব্দগুলোর জন্য পাঠকের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি, যাদের লেখা নিকটি প্রকাশ করছে তাঁদের কাছেও ক্ষমা চাচ্ছি, কিন্তু তাঁদেরকে পোস্টগুলোতে এমনভাবেই উপস্থাপন করা হয় সুলতা আর সুলতার কবি বন্দনায়) দিয়ে লেখানো আত্ম স্তুতিমূলক লেখাগুলো ব্লগের সবাইকে বিনোদন দিচ্ছে সত্য কিন্তু এ বিনোদন হয়তো দীর্ঘস্থায়ী না। সব বিনোদন সব জায়গায় গ্রহণযোগ্য হয় না। বন্ধু-বান্ধবের আড্ডায় কিছু কিছু কৌতুক ভালো শুনায়। কিন্তু নিজের সন্তানকে সেই কৌতুক বলা যায় না। এখন ব্লগে যদি বাপ-বেটি একসঙ্গে ব্লগিং করে তাঁদের জন্য নিশ্চয়ই এসব লেখা আরামদায়ক হবে না। জীবনের সব সঞ্চয় এক ব্যাংকে এফডিআর করার দরকার আছে বলে মনে হয় না। যেভাবে মাঝে মাঝে ব্যাংক লুটপাট হচ্ছে।  

 

এভাবে সিরিয়াস কথা আমি সাধারণত বলি না আজ কেন জানি বললাম। সুলতার দোহাই আমাকে মাপ করবেন। সুলতাকে আমার হিংসে হয়, কীভাবে মরহুম সফিকুল ইসলাম তাকে এতো ভালবাসে!! একটি কবিতাও লিখলো না কেউ অথচ বুকের মধ্যে সুগন্ধি রূমাল রেখে কবে থেকে বসুন্ধরা টিস্যু দিয়ে ঘাম মুছি। আজকাল ব্লগে পোস্ট করলে লোকজন শুধু লিঙ্গ পরিচয় জানতে চায়। দোহাই আপনাদের, বুকের মধ্যে রূমাল রেখেছি বলে বুকের কষ্ট পরিমাপ করবেন না। এই ব্লগে কপি পেস্ট করলে লোকজন ধরে ফেলে। কথা বললেও রেফারেন্স চায় তাই দুটি রেফারেন্স সংযুক্ত করা হল।   

 

চুপকথা ছেলে না মেয়ে তাও জানিনা। মেয়ে হলে ভাল।– যুক্তিযুক্ত


মেয়েদের দিব ( heart) ছেলেদের দিব (flower) আপনি ভেবে নিন আপনাকে কি দিছি- অকিঞ্চন জন।

 

এভাবে বললে সত্যি লজ্জা পাই। বেশি বললাম না লজ্জা লাগছে। ঠোটকাঁটা  হলেও আমার কিঞ্চিৎ লজ্জা আছে। চুপকথাওতো ব্লগার। চুপকথার সেক্সের দিকে প্লিজ এভাবে নজর দিবেন না। আপনাদের নজর এড়ানোর জন্যই আমি হিজাবের উপকারিতা নিয়ে পড়াশুনা করছি।  

 

এ লেখার কোনো চরিত্র কাল্পনিক নয়, কারো জীবনের সাথে মিলে গেলে সেটা মোটেও কাকতালীয় নয়। এটা একটি উদ্দেশ্য প্রণোদিত লেখা, আপনাদের কাউকে আঘাত করে থাকলে চুপকথা দায়ী। আর এটা প্রকাশ না হলে দায় শুধু সঞ্চালকের।   

ছবি
সেকশনঃ কৌতুক
লিখেছেনঃ চুপকথা তারিখঃ 06/09/2013 10:01 PM
সর্বমোট 11363 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ

সর্বোচ্চ মন্তব্যকৃত

এই তালিকায় একজন লেখকের সর্বোচ্চ ২ টি ও গত ৩ মাসের লেখা দেখানো হয়েছে। সব সময়ের সেরাগুলো দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন