ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

অচেনা এক রমণী









































অচেনা এক রমণী
সাইয়িদ রফিকুল হক

 
সন্ধ্যা হবে-হবে দুলছিলো বনের লতা,
মনের আনন্দে হাসছিলো গাছের পাতা!
পাখিরা যেন সব করছিলো মাতামাতি,
সবাই খুঁজছিলো মনের মতো সাথী।
পথহারা নবীন হাতড়ায় পথের দিশা,
সন্ধ্যা হবে-হবে বাড়বে যেন নিশা!
জনমানবের খোঁজে হাঁটছিলো নবীন,
এমন সময় সে দেখতে পেলো এক গৃহ প্রাচীন!
সাহস-সঞ্চারি পায়ে-পায়ে এগিয়ে গেল যুবক,
হঠাৎ সে দেখলো, রমণী এক দাঁড়িয়ে নিষ্পলক!
সভয়ে চমকালো নবীনযুবক, মুখে নাই কথা,
বেলা যে ডুবে যায়, বুকে তার বাড়ে ব্যথা।
সেই রমণী যেন হঠাৎ একটু হাসলো তাকে দেখে,
হাতের ইশারায় নবীনযুবককে কাছে নিলো ডেকে।
মানবীর হাসিতে পথহারা নবীন ফিরে পেলো স্বস্তি,
হঠাৎ তার মনে জাগলো যেন ভালোবাসার প্রশস্তি!
মনে তার খটকা, ভয়-ভয়-ভাব, তবু সাহস করে
নবীনযুবকটা এগিয়ে যায় অচেনা এক রমণীর কাছে,
আর গভীরভাবে বারেবারে তাকিয়ে দেখলো সে যে
ওই রম্য অচেনা রমণীর চোখে কী-এক জাদু আছে!
 
 
 
সাইয়িদ রফিকুল হক
মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ।
  

ছবি
সেকশনঃ কবিতা
লিখেছেনঃ সাইয়িদ রফিকুল হক১ তারিখঃ 26/02/2019 12:03 AM
সর্বমোট 212 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ