ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

হতাশায় আশার খোঁজে ---->মুঃ ইসমাইল মুয়াজ

মুরব কৌতুহলী একজন ছাত্র। সে সবে মাত্র জীবন লক্ষ্য পথে ছুটছে। মানে সে নবম শ্রেণীতে।সে পড়ালেখা যে পরিমাণ করে তার চেয়েও তার পরিকল্পনার তালিকা ডের বেশী। তার লম্বা চওড়া পরিকল্পনার তালিকা দেখলে সকলে ভাববে সে অনেক ব্যস্ত। আসলে বাস্তবতায় সে এতটা না। তবে তার লম্বা চেয়েও লম্বা হচ্ছে তার ব্যর্থতার তালিকা। কারণটা খুব সহজ তার হাজারো পরিকল্পনার সাথে ইফোর্ট তেমন একটা নেই। তাই তার আজ এই বেহাল দশা। আশে পাশে সবার কাছে ছোট হওয়া থেকে কেউ তাকে পাত্তা দেয় না। তার আজ মনে পড়ে আয়মান সাদিকের সেই ভিডিও এর কথা। আইডিয়া*ইফোর্ট=রেজাল্ট তার আইডিয়া ভালো ছিল কিন্তু ইফোর্ট ছিলো শূণ্যের কাছাকাছি। তাই তার এ অবস্থা। তার জীবনের কিছু ত্রুটি আজ তাকে হতাশায় ডুবাচ্ছে। হাঁটতে, বসতে, চলতে,উঠতে সে ভাবছে কেউ কি দিবে আশার আলো? এই চিন্তা তাকে আরো চরম দুর্দশায় নিমজ্জিত করছে। অবশেষে পাওয়া গেলো আশার বাণী। সে পুকুরের রাস্তা ঘেষে ভাবতে ভাবতে বাইরে যাচ্ছে। সে দেখতে পেলো একটা বাচ্চা পুকুর ঘাটে ফোম নিয়ে খেলছে। একবার ফোম পানিতে ডুবাচ্ছে আর চাপ দিয়ে টস টসে ফোমকে পানি শূণ্য করছে।সে বিষয়টাকে এভাবে ভাবল যে, পুরো পুকুরটা হলো পৃথিবী আর ফোমটা হল ব্যক্তি। যেভাবে ফোম পানিতে রাখলে পানি টেনে নেয় সেভাবে ব্যক্তি জীবন পেলে ব্যর্থ হবেই। বাচ্চাটি যেভাবে পানি অপসারিত করছে, সেভাবে আমিও আমার ব্যর্থতাটাকে সরাতে পারবো। তার জন্য প্রয়োজন চেষ্টা,চেষ্টা,চেষ্টার। সে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হয়ে ঘরে ফিরল নতুন ভাবে জীবনটাকে গড়ার। আর নয় হতাশা, খুঁজে নাও জীবনের আশা। তার ভাবনা এবার পূর্ণতা দেয়া হবে নতুন উদ্যমে। আশা আমার, আমায় নিয়ে লেখা হবে আবার। বিশ্ব শুধু চেয়ে চেয়ে দেখবে।

ছবি
সেকশনঃ সাধারণ পোস্ট
লিখেছেনঃ মুঃ ইসমাইল মুয়াজ তারিখঃ 15/09/2018 08:13 AM
সর্বমোট 294 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ