ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

শীতরাত্রির কথকতা

ফেরারী বিকেলটা ছুটে পালাতেই
ধেয়ে আসে আলো-আধারি সান্ধ্য প্রহর,
গোধূলির চুরি যাওয়া আলোয় বেজে ওঠে-
বিষাদ-অন্ধকারের বিষণ্ন সুর।
তখন- ঘুমভাঙা পাখিদের মত
নিয়ত জেগে থাকে সিক্ত আকাশ-
ছায়া-ছায়া ধবল কুয়াসায়।
সাঁঝের প্রহরে কাঁপন জাগানিয়া হিম নামে-
হিজলের বনে,
পৌষী হিমেল রাতে ধ্যানমগ্ন সন্ধ্যাতারাটা
স্যাঁতসেঁতে পুকুরটার বুকে স্থির ছবি আঁকে।
তারই পাড়ে ভিড় করে-
ডানপিটে ছেলেছোকড়ার দল;
ঝরা পাতা, খড়কুটো জ্বেলে ওম খোঁজে-
আগুনের হল্কায়।
রূপালি চন্দ্রপ্রভায় জোছনা-কুয়াসা
নিবিড় মিতালী গড়ে; অতঃপর
নিশীথে নিঃশব্দ শিশিরের প্লাবন বয়ে যায়-
ঘরদোরের ঘুলি-ঘুপচিতে; লাউয়ের মাচায়।
মৌন রাত্রির নির্জীব আলোয় স্নান শেষে 
জেগে থাকে একলা ডাহুক আর একাদশী চাঁদ -
সন্ধ্যামালতী, কাঁঠালচাঁপার বনে।
রাত্রি সম্পন্ন করে তার সমস্ত আয়োজন, 
আদুরে বিছানা, উষ্ণ লেপের পরশে
আয়েশী নিদ্রা ভুলে বেহিসেবী মন-    
নির্বাসিত শয্যায় মিলাতে চায়
পাওয়া না-পাওয়ার দুর্বোধ্য সমীকরণ। 

ছবি
সেকশনঃ কবিতা
লিখেছেনঃ নিভৃত স্বপ্নচারী তারিখঃ 10/01/2018 01:46 PM
সর্বমোট 1702 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ