ব্যাকগ্রাউন্ড

মুক্তচিন্তার বিশ্ব

আপনার পছন্দের যে কোন কিছু সহব্লগারদের সাথে শেয়ার করতে ও শেয়ার কৃত বিষয় জানতে এখানে ক্লিক করুণ

ফেইসবুকে!

হাইব্রিড পলিটিশিয়ান: কলা ওয়ালার কলা না, ধামা ওয়ালার কলা!

একজন জামাত বা শিবির করলে সে সারা জীবনই জামাত বা শিবিরই করে সেটাই স্বাভাবিক। ব্যতিক্রম ছাড়া জামাত বা শিবির পরিবারে জন্ম নেওয়া সদস্যদের ক্ষেত্রেও এটা প্রযোজ্য।

তারপরেও ধরে নিলাম কারও কারও ক্ষেত্রে এমনটি নাও হতে পারে। কত ব্যতিক্রমই তো আছে। ধরে নিলাম আলাদীনের চেরাগের মতো আওয়ামী লীগের আদর্শের ছোঁয়ায় জামাত-শিবিরের আদর্শধারী কোন ব্যক্তির পূর্বের ধারণকৃত সকল আদর্শ একেবারে ভেতর থেকে একশ আশি ডিগ্রি পরিবর্তন হয়ে সে স্বাধীনতার চেতনাকে ব্যাপকভাবে ধারণ করে ফেলল। এটা আশাবাদী হবার মতো খুবই ভাল কথা।

এমনটা হওয়া আওয়ামী লীগের জন্য নিঃসন্দেহেই এক বিরাট সাফল্য। আমরা সবাইই আওয়ামী লীগের এমন সাফল্যই কামনা করি। আমরা চাই জামাত-শিবিরের আদর্শধারীরা আওয়ামী লীগের আদর্শকে মনেপ্রাণে ধারণ করে এভাবে পরিবর্তন হয়ে দলে দলে আওয়ামী লীগে যোগ দিক এবং দেশ জামাত-শিবির মুক্ত হয়ে যাক। এমনটা আমরা দেখতেও পাচ্ছি এবং খুবই আশান্বিত হচ্ছি। যদিও কিছু দুর্মুখো লোকজন এর সমালোচনা করছে। তাদের ভাবটা এমন যেন একজন ব্যক্তির আদর্শ পরিবর্তন হতে পারে না।

আমিও মাঝে মাঝে দুর্মুখোদের দলে যোগ দিয়ে ফেলি। আমি খুঁজেই পাইনা, আদর্শ পরিবর্তনের এমন ধারা কেন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেখা যায়! আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে তো এমন ঘটনা একটাও ঘটতে দেখা যায় না! তাহলে এ আদর্শ পরিবর্তনের রহস্যটা কী? তখন কী তাদের চেতনা ও আদর্শ কুম্ভকর্ণের নিদ্রায় যায়?

আদর্শ পরিবর্তন করে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া আর আওয়ামী রাজনীতি না করে সরাসরি তার নেতা বনে যাওয়া এক কথা নয়। যারা যোগ দিচ্ছে তারা সবাই সরাসরি নেতা হয়ে যাচ্ছে। মনে হচ্ছে আওয়ামী লীগ খুব দেউলিয়া একটা সংগঠন, এখানে নেতা হবার মতো মানুষের খুব আকাল পড়েছে। ভুঁইফোড় নেতা ছাড়া কোনভাবেই যেন আর চলছে না!

বাস্তবতা তো তা নয়,আওয়ামীপন্থী রাজনীতির সকল পর্যায়েই বহু ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা আছে। তারা নেতা না হয়ে কেন ওদেরকে নেতা বানানো হচ্ছে? এর রহস্যটাই বা কী?

উত্তর জানি কিন্তু বলা যাবে না!

 

ছবি
সেকশনঃ সাধারণ পোস্ট
লিখেছেনঃ যুক্তিযুক্ত তারিখঃ 31/01/2017 05:20 PM
সর্বমোট 713 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ