ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

বদলে যাওয়া কাল

মেয়েদের আসলে কবিতা লেখা উচিৎ! হোক সে বৈমানিক কিম্বা নভোচারী। কবিতায় সে তুলে আনবে সুঁই-সুতোর ক্রসচেক, ছোট গল্পে দেখাবে সংসারের ঝুলানো পর্দা অথবা শতছিন্ন চাদর। ওদের কথায় সাহিত্যে সত্যিই জীবন উঠে আসবে, উঠে আসবে জীবন কবিতায়, হরবোলায়। কথা বলবে নিঃশব্দের গোঙানি। ছোট গল্প হয়ে উঠবে চোখের জল আর আনন্দ অশ্রু। জীবনটা ওরা বুঝেছে কপর্দক হয়ে, সেবাদাসী বেশে, মেহেদী রাঙা সাজায়। মেয়েদের উচিৎ ছোট গল্প লেখা কিম্বা কবিতা। সহস্র বছর মাংসল পটের পুতুল খেলা শেষে হোক সে আজ, সারেং বা ছুটে চলা স্টেশনের মাস্টার! দগদগে ঘা শুকিয়ে যাওয়া শেষে আজও দাগ বয়ে যায় শুকনো নদীর বেশে। নদী তীরে ঘাট হোক! নোঙর করুক জাহাজ! মেয়েরা সারেঙ হয়ে বলে যাক যে সহস্র কাল ছিলো তারা জেনানা মহলের বন্দিনী। ঝিকঝিক বৃষ্টিতে স্টেশনে বসে বিক্রি হোক ক্যাবিন আর বগির আসা যাওয়ায় চলমান গল্পের। মেয়েদের উচিৎ মেঘে বসে মুষলধারার গান লেখা। মেয়েদের উচিৎ অতলে শুয়ে মহাশূন্যের গদ্য লেখা।

ছবি
সেকশনঃ কবিতা
লিখেছেনঃ জিসান শাহরিয়ার তারিখঃ 23/05/2021
সর্বমোট 867 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ