ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

কবিতাঃ এক টুকরো জীবন



একদিন থমকে ছিলো জীবন- ধূসর এ্যালবামে,
ক্যানভাসে আঁকা স্থির বিবর্ণ প্রতিচ্ছবি হয়ে।  
ক্ষয়িষ্ণু নগরীর বুকে জ্বলে ওঠা লণ্ঠনের আলো-
কখনও কি মনের গহীনে জমানো গাঢ় অন্ধকারকে
ঢেকে দিতে পারে? লাল, নীল, সাদা রঙের দিনগুলো 
কি আশ্চর্য অবহেলায় নিজেকে বিসর্জন দেয় রাত্রির কাছে,
তৃষিত শরীরে জলজ আঁধার বুকে নিয়ে জেগে থাকে নীলপদ্ম-
জলাধারের নিবিড় নিস্তব্ধতায়, নিশিথের অন্তিম প্রহরে।
পাহাড়ি শঙ্খচূড়ের মাতাল নৃত্য বনসাই মননে
কদাচিৎ গভীর ক্ষত রেখে যায়, কেউ কেউ হয়তো
চলেও যায় অন্য ভুবনে- পথভোলা পথিকের মতো,
জীবনের সুপ্ত কোঠরে নির্মম পদচিহ্ন এঁকে রাতগুলো
কেবলই জেগে থাকে- অভিশপ্ত মমি হয়ে। 
কি নির্মম সময়, অপরিহার্য পরিনতি! তবুও টিকে থাকা,
তবুও অসীম ভালবাসায় জিইয়ে রাখা– এক টুকরো জীবন।!
যখন সন্ধ্যা নামে- জোনাকিরা জেগে ওঠে,
যখন আঁধার ঘনিয়ে আসে- নিঃসঙ্গতায় রাত জাগে চাঁদ,
আর চাঁদ বিদায় নিলে- তুলির আঁচরে ছুঁয়ে যাওয়া দিগন্তে
রক্তাভ সূর্যটা নিরবে একাকী কাঁদে।
একদিন মুহূর্তগুলো থমকে ছিলো- নিবিড় মৌনতায়,
স্তব্ধ প্রহরে- নিছিদ্র অন্ধকারের মতো,
বিকেলের রোদ্দুরেরা ছুটি নিলে ধেয়ে আসে
উম্মাতাল অন্তিম প্রহর, মৃম্ময়ী পৃথিবীতে তবুও আবার আসে-
কোজাগরি পূর্ণিমা, খরস্রোতা নদীর ঢেউয়ের মাঝে
বেঁচে থাকা জেলেদের স্বপ্নের মতো।
এখন কেবলই থমকে থাকা সময়,
এখন কেবলই মৃত্যুর পদধ্বনি!
নিশুথ-শিশিরের কান্নার সাথে মিলেমিশে
একাকার হয়ে যায়।
 
রচনাকালঃ জুলাই ৫, ২০২০
ছবিঃ নেট থেকে নেওয়া।

ছবি
সেকশনঃ কবিতা
লিখেছেনঃ নিভৃত স্বপ্নচারী তারিখঃ 09/07/2020
সর্বমোট 294 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ

সর্বোচ্চ পঠিত

এই তালিকায় একজন লেখকের সর্বোচ্চ ২ টি ও গত ৩ মাসের লেখা দেখানো হয়েছে। সব সময়ের সেরাগুলো দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন