ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

ডেঙ্গু আতংক, ডেঙ্গু প্রতিরোধ, ডেঙ্গু নির্মূলে ওষুধ ফটোসেশা।

সারাদেশে ফেসবুক কল্যাণে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এর বক্তব্য প্রদানের পর সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন যে হারে ডেঙ্গু প্রতিরোধে এডিস মশার বংশ ধ্বংস করতে যত ছবি ফেসবুকে আপলোড হলো তাতে এক একটি ছবি যদি ৫ হাত যায়গা পরিষ্কার পরিছন্ন হওয়ার পর আপলোড হতো তাহলে এডিশ মশা সহ ডেঙ্গু ভয়াবহ আকারে কমে আসত। কিন্তু প্রতিদিন টিভি মিডিয়া হাসপাতালের বরাত দিয়ে যে তথ্য দিচ্ছে তাতে বোঝা যাচ্ছে ডেঙ্গু প্রতিরোধ নামে ফটো শেসন এর ঈদ আমেজ চলছে কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না। দেশে সার কীটনাশকের দোকান কম নেই। ৬৮ হাজার গ্রামে খোজ করলে প্রায় গ্রামে পাওয়া যাবে। আর শহর ত ব্যবসার প্রাণকেন্দ্র। এই মশা মাছি মারার জন্য যে কীটনাশক ব্যবহার করা হয় সেটা #ম্যালাথিয়ন ৫৭ ইসি নামের একটি গ্রুপের কীটনাশক। এই কীটনাশক বিভিন্ন কোম্পানি বিভিন্ন নামে সবজিতে ব্যবহারের জন্য বাজারে বিক্রয় করে। তাহলে যে সকল প্রহসন দেখছি আসলে আমরা কতটা উদ্বিগ্ন বা উদ্যোগী মশা নিধনে। বাস্তবে কি এই স্বল্প মূল্যর কীটনাশক ব্যবহারের কোন পরামর্শ এখনও কোথাও কেউ দেখতে পাচ্ছেন সরকার বা কোন সংস্থার পক্ষ হতে? মশা নিধনে কোন কীটনাশক ব্যবহার হবে এই কথাটুকু এ যাবত কেউ প্রচার করছে না। শুধু এদেশ সেদেশ হতে মশা নিধক ওষুধ আনা হচ্ছে আসলে সেই ওষুধের নাম কি সেটা কি বলা যায় না। মশা নিধনে সম্মিলিত উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বাট মশা নিধনের অস্ত্র কেউ নিচ্ছে না। ফলে মনে হচ্ছে হাত দিয়ে ধরে গণপিটুনি দিয়ে মশা নিধন করতে হবে আর ফটোসেশান সেটা দেখাতে হবে। মশা মাছি নিধনে কীটনাশক #ম্যালাথিয়ন ৫৭ ইসি গ্রুপের কীটনাশক বাড়ির আশপাশে স্প্রে করি। হাতের কাছে সহজলভ্য।

ছবি
সেকশনঃ সাধারণ পোস্ট
লিখেছেনঃ মাজেদুল হক তারিখঃ 02/08/2019 06:34 AM
সর্বমোট 258 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ