ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

পুলিশ এবং ফুটপাথ

কাকরাইলের পাইওনিয়ার রোড হতে মেয়েকে নিয়ে সিদ্ধেশ্বরীর দিকে স্কুলে যেতে হয় প্রায় প্রতিদিনই। বাসার সামনে হতে রিক্সা না পেলে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উল্টো দিকের ফুটপাথ মাড়িয়ে কিছুদূর গিয়ে রাজমনি সিনেমা হল অথবা কাকরাইল মোড়ে গিয়ে রিক্সা নিতে হয়। কিন্তু এই এলাকার ফুটপাথ দিয়ে হাটা প্রায় অসম্ভব, হাটলেও আপনাকে ফুটপাথে যারা চা, বিড়ি, আর কলা বনরুটি খেতে ব্যস্ত, তাদেরকে ধাক্কা দিয়ে নয়তো ধাক্কা খেয়ে চলতে হবে, নইলে বাচ্চা নিয়ে মাঝ রাস্তা ধরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলা ছাড়া, আর কোন বিকল্প নেই, কারণ ফুটপাথের পাশে রাস্তার অংশেও বিত্তবানদের গাড়ী পার্কিং করা থাকে অবৈধ ভাবে। পাইওনিয়ার রোডের নীলিমা হোটেল এখন "রমনা মডেল থানা"। আজ এর উদ্বোধন উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ও তৎসংলগ্ন এলাকার ফুটপাথ হকারমূক্ত করা হয়েছে। কারণ থানা উদ্বোধন করতে এসেছেন পুলিশের বড় কর্তারা। রাস্তায় দাঁড়িয়ে পুলিশ স্থানীয় পথচারীদের মধ্যে সৌহার্দ ও ভালবাসার প্রতীক ফুল বিতরণ করছেন। পুরো এলাকায় এক সুন্দর পরিবেশের অবতারণা হয়েছে আজ। আমার বাসা এই এলাকায় হওয়ার সুবাদে আমিও একটি ফুলের ভাগিদার হতে পেরে নিজেকে নিজেই সাবাশী দিলাম। আজ এই এলাকার ফুটপাথ দিয়ে হাটাতে বেশ ভাল লাগছিল। আমি মনে মনে ভাবছিলাম, যাক বাসার কাছে থানা হওয়াতে, এখন হয়তো এই এলাকায় আর ফুটপাথ দখল হবে না। এমন সময় পাশ থেকে দুজন লোক আলাপ করছিল, "আইজকা ভালা কইরা হাইট্টা লও কালকাই দেখবা এইখানে আবার আগের ঠিক চেহারা পাইছে"। আমি সম্ভিত ফিরে পেলাম। বুঝলাম, আজকের এই সুন্দর পরিবেশ আর পুলিশ জনতার সৌহার্দ্য পুরোটাই লোক দেখানো। আমার পাশেই দাঁড়ানো ছিলেন পুলিশের এক মাঝারী র‍্যাংকের কর্মকর্তা উনাকে অনুরোধের সুরে বললাম দেখুন জনাব, এই ফুটপাথ যেন আর দখল না হয় সে দিকে খেয়াল রাখবেন। তিনি আমার পুরো কথা শেষ না হতেই, শুধু একবার আমার দিকে একবার তাকালেন, কোন জবাব দিয়েই মোবাইল ফোনে কথা বলার ভঙ্গিতে সামনের দিকে এগিয়ে গাড়ীতে উঠে চলে গেলেন। আমি যা বুঝার বুঝে নিলাম আর ভাবলাম, পুলিশ এখনো জনগনের প্রকৃত বন্ধু হতে আর কতদিন বাকী?

ছবি
সেকশনঃ সাম্প্রতিক বিষয়
লিখেছেনঃ সহজ কথা রিটার্ন তারিখঃ 18/05/2018 12:20 AM
সর্বমোট 244 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ